কক্সবাজারের পাঁচ ক্ষুদে ফুটবলারকে লাখো মানুষের অশ্রুসিক্ত বিদায়

নিউজ ডেস্ক::
রোববার দুপুর ১২টায় পাঁচ স্কুল শিক্ষার্থীর মধ্যে চারজনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। অপর হিন্দু শিক্ষার্থীর সৎকার সম্পন্ন হয়েছে।মাতামুহুরীর যেই চরে শনিবার ফুটবল খেলেছিল এই শিক্ষার্থীরা, আজ দুপুরে সেই চরেই অনুষ্ঠিত হয়েছে চারজনের জানাজা। এতে অংশ নেয়া লাখো মানুষ অশ্রুসিক্ত শেষ বিদায় জানায় চার ক্ষুদে ফুটবলারকে।

জানাজায় কিশোরদের স্বজন ছাড়াও বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গসহ নানা শ্রেণী-পেশার লাখো মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও নদীর দুই পাড়ে ভিড় জমায় হাজারো নারী।

নিহত পাঁচজনের মধ্যে অন্যজন হিন্দু ধর্মাবলম্বী তুর্য ভট্টাচার্যকে নিজ বাড়ি কক্সবাজার শহরের কেন্দ্রীয় শ্মশানে সৎকার করা হয়। সেখানেও হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আর্জেটিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের মধ্যে আয়োজিত প্রীতি ফুটবল ম্যাচ শেষে শনিবার বিকালে মাতামুহুরী নদীতে গোসল করতে নেমে পাঁচ ক্ষুদে ফুটবলার নিখোঁজ হন। তারা পাঁচজনই চকরিয়া গ্রামার স্কুলের ছাত্র।

ad

সন্ধ্যায় দুই সহোদর আমিনুল হোসাইন এনশাদ ও আফতাব হোসেন মেহরাব এবং মো. ফারহানের মরদেহ মাতামুহুরী নদী থেকে জাল টেনে উদ্ধার করা হয়।

এরপর স্থানীয়দের সহায়তায় রাত ১২টার দিকে নিখোঁজ দুই ক্ষুদে ফুটবলার সায়ীদ জাওয়াদ অরবি ও তূর্য ভট্টাচার্যের মরদেহ মাতামুহুরী নদী থেকে উদ্ধার করা হয়।

একসঙ্গে এই পাঁচ শিক্ষার্থীর মৃত্যুকে কোনভাবে মেনে নিতে পারছেন না তাদের সহপাঠী, আত্মীয়-স্বজনসহ পুরো এলাকাবাসী। তাদের অকাল মৃত্যুতে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।