কক্সবাজারসহ ১৭ জেলায় না যেতে ইসির সতর্কতা

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, সিলেট, মৌলভীবাজারসহ ১৭ জেলার শতাধিক উপজেলায় ভোট হবে আগামী ১৮ মার্চ। এই ভোট উপলক্ষে ১৭ মার্চ রাত ১২টা থেকে ১৮ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। এই সময় এসব এলাকায় পর্যটকরা ঘুরতে গিয়ে যাতে যানবাহনের কারণে বিপদে না পড়েন, সেজন্য সতর্ক বার্তা জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এই সময়ে ভোট হতে যাওয়া এলাকায় যেতে পর্যটকদের নিরুৎসাহিত করতে স্থানীয় পর্যায়ের পর্যটক সংস্থা, হোটেল, রেস্টহাউজ ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্তপক্ষকে অবহিত করেছে ইসি।

যেসব যানবহানের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে সেগুলো হলো- বেবি ট্যাক্সি/অটোরিকশা, ট্যাক্সি ক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, কার, বাস, ট্রাক, টেম্পো, ইজিবাইক এবং স্থানীয় পর্যায়ের বিভিন্ন যন্ত্রচালিত যানবাহন।

এ ছাড়া ভোটগ্রহণের আগের দুইদিন থেকে ভোটগ্রহণের দিন রাত ১২টা পর্যন্ত মটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

তবে জাতীয় মহাসড়ক, বন্দর ও জরুরি পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরি কাজে ব্যবহৃত যান চলাচলের ক্ষেত্রে প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এই নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে পারবেন।

ইসির সতর্ক বার্তায় বলা হয়, ‘১৫ থেকে ১৭ মার্চ সরকারি ছুটি থাকায় এ সময় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন এলাকাগুলোতে অধিক সংখ্যক পর্যটক সমাগমের সম্ভাবনা রয়েছে। যানবাহন ও অন্যান্য কারণে পযর্টকরা যাতে কোনো সমস্যায় না পড়েন, সেজন্য আগে থেকেই এই সময়ে উল্লিখিত এলাকায় যেতে চাওয়া পর্যটকদের নিরুৎসাহিত করার লক্ষ্যে স্থানীয় পর্যায়ের পর্যটক সংস্থা, হোটেল, রেস্টহাউজ ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্তপক্ষকে অবহিত করা হলো।’

যেসব উপজেলায় ভোট হবে তার মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগের নোয়াখালী জেলার হাতিয়া উপজেলা; চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ড, সন্দ্বীপ, রাঙ্গুনিয়া, ফটিকছড়ি, মীরসরাই, রাউজান ও হাটহাজারী উপজেলা; রাঙ্গামাটি জেলার রাঙ্গামাটি সদর, লংগদু, নানিয়ারচর, কাপ্তাই, জুরাছড়ি, বাঘাইছড়ি, কাউখালী, বরকল, রাজস্থলী ও বিলাইছড়ি উপজেলা; বান্দরবান জেলার সদর, রোয়াংছড়ি, আলীকদম, থানচি, লাম, রুমা ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা; খাগড়াছড়ি জেলার সদর, মানিকছড়ি, লক্ষীছড়ি, দীঘিনালা, মহালছড়ি, পানছড়ি, মাটিয়াঙ্গা ও রামগড় উপজেলা এবং কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলায়।

সিলেট বিভাগের সিলেট জেলার সদর, বিশ্বনাথ, দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ, কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট, জকিগঞ্জ, গোপালগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলা; মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা, জুড়ী, কুলাউড়া, রাজনগর, সদর, কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা।

এছাড়াও ঢাকা বিভাগের ফরিদপুর জেলার সদর, বোয়ালমারী, চরভদ্রাসন, সদরপুর, সালথা, আলফাডাঙ্গা, মধুখালী, নগরকান্দা ও ভাঙ্গা উপজেলা।

রংপুর বিভাগের ঠাকুরগাঁও জেলার সদর, পীরগঞ্জ, হরিপুর, বালিয়াডাঙ্গী ও রাণীশংকৈল উপজেলা; রংপুর জেলার গংগাচড়া, তারাগঞ্জ, পীরগাছা, বদরগঞ্জ, কাউনিয়া ও পীরগঞ্জ উপজেলা; গাইবান্ধা জেলার গাইবান্ধা সদর, সাদুল্লাপুর, গোবিন্দগঞ্জ, ফুলছড়ি, সাঘাটা ও পলাশবাড়ী উপজেলা; দিনাজপুর জেলার কাহারোল, বোচাগঞ্জ, চিরিরবন্দর, ফুলবাড়ী, বিরামপুর, বীরগঞ্জ, নবাবগঞ্জ, বিরল, পার্বতীপুর, খানসামা ও ঘোড়াঘাট উপজেলা।

রাজশাহী বিভাগের বগুড়া জেলার সদর, নন্দীগ্রাম, সারিয়াকান্দি, আদমদীঘি, দুপচাঁচিয়া, ধুনট, শাজাহানপুর, শেরপুর, শিবগঞ্জ, কাহালু, গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলা; নওগাঁ জেলার নওগাঁ সদর, আত্রাই, নিয়ামতপুর, সাপাহার, পোরশা, ধামইরহাট, বদলগাছী, রাণীনগর, মহাদেবপুর, পত্মীতলা ও মান্দা উপজেলা; পাবনা জেলার পাবনা সদর, আটঘরিয়া, বেড়া, ভাঙ্গুড়া, চাটমোহর, ফরিদপুর, ঈশ্বরদী, সাঁথিয়া ও সুজানগর উপজেলায় ভোট হবে।

ad