ওয়ানডে দলে চার নতুন মুখ

স্পোর্টস  ডেস্কঃ টেস্ট সিরিজ শেষেও ওয়েস্ট ইন্ডিজে থাকছেন নাজমুল হাসান শান্ত ও আবু জায়েদ চৌধুরী। টেস্ট স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া এই দুই ক্রিকেটার প্রথমবার ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলে। প্রথমবারে মতো ওয়ানডে দলে জায়গা পেয়েছেন টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে খেলা নাজমুল ইসলাম অপু ও আবু হায়দারও।

চোটের কারণে টেস্ট সিরিজ থেকে ছিটকে পড়া পেসার মুস্তাফিজুর রহমান আছেন ওয়ানডেতে। টেস্ট দল থেকে বাদ পড়লেও ওয়ানডেতে ফিরেছেন মোসাদ্দেক হোসেন।

বাংলাদেশ সবশেষ ওয়ানডে খেলেছিল গত জানুয়ারিতে দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে। সেই সিরিজের ফাইনালের জন্য ১৬ জনের স্কোয়াড থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাদ পড়েছেন ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুন, আবুল হাসান, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন ও সানজামুল ইসলাম। হাঁটুর অস্ত্রোপচার করিয়ে দীর্ঘসময়ের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন নাসির হোসেন।

ওই সিরিজেই ওয়ানডে দলে ফিরেছিলেন এনামুল হক। চার ম্যাচে ১৯, ৩৫, ১ ও ০ রান করার পর জায়গা হারিয়েছিলেন ফাইনালের একাদশ থেকে। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টিকে গেছেন এই কিপার ব্যাটসম্যান।

প্রথমবার ওয়ানডে দলে জায়গা পাওয়া চার জনের সবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ পেয়েছেন অন্য সংস্করণে। শান্ত টেস্ট খেলেছেন একটি, আবু জায়েদ খেলেছেন তিনটি টি-টোয়েন্টি। বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার খেলেছেন ৮টি টি-টোয়েন্টি। ১০ টি-টোয়েন্টি খেলা বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল অপু হয়ে উঠেছেন টি-টোয়েন্টি বোলিং আক্রমণের গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

ad

মোসাদ্দেক তার ১৮ ওয়ানডের সবশেষটি খেলেছেন গত বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে ভারতের বিপক্ষে এজবাস্টনে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট দল থেকে বাদ পড়ার পর শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে আনঅফিসিয়াল টেস্টে দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে। তার দলে ফেরায় বড় ভূমিকা রেখেছে সেই ইনিংস।

শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে ওই ম্যাচেই ক্যারিয়ার সেরা ১৬৫ রানের ইনিংস খেলেছেন সাব্বির রহমান। ইনিংসটি হয়তো বাঁচিয়ে দিয়েছে ওয়ানডে দলে তার জায়গাও। সবশেষ ১১ ওয়ানডে ইনিংসে ৪০ ছুঁতেও পারেননি একবার।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুটি গায়ানায় ২২ ও ২৫ জুলাই, শেষটি সেন্ট কিটসে ২৮ জুলাই। অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাসহ ওয়ানডে দলের যারা টেস্টে নেই, তারা ঢাকা ছাড়বেন ১৪ জুলাই প্রথম প্রহরে।

ওয়ানডের বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, এনামুল হক, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু, নাজমুল হাসান শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু হায়দার, আবু জায়েদ চৌধুরী।