ওমানে দলের সঙ্গে সাকিব, খেলবেন বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি নিতে প্রায় দুই সপ্তাহ আগে বাংলাদেশ ওমানে আসলেও ছিলেন না সাকিব আল হাসান। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলার পর তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বিশ্বকাপ শুরুর একদিন আগে।

রোববার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিন মাঠে নামবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। জাতীয় দলের জার্সিতে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামতে সাকিবের কোনো বাঁধা নেই। আইপিএলের জৈব সুরক্ষা বলয় থেকে সরাসরি জাতীয় দলের হোটেলে উঠেছেন সাকিব। এজন্য আলাদা কোয়ারেন্টাইন করা লাগছে না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের।

শুক্রবার রাতে আইপিএলের ফাইনাল খেলেছেন সাকিব। বল-ব্যাট হাতে নিষ্প্রভ ফাইনাল গেছে তার। ব্যাটিংয়ে ২ বলে শূন্য রান ও বল হাতে ৩ ওভারে খরচ করেছেন ৩৩ রান। তার দল কলকাতা নাইট রাইডার্সও শিরোপা হারিয়েছে।

ফাইনালের পর দুবাই থেকে ওমানে রওণা হন সাকিব। আইসিসি ও কলকাতার ব্যবস্থাপনায় সড়কপথে ওমান আসেন সাকিব। জৈব সুরক্ষা বলয় যেন বিঘ্ন না করে এজন্য ফ্লাইটে না এসে সড়কপথে সীমান্ত অতিক্রম করেন সাকিব। প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টার যাত্রা শেষে শনিবার সকালে দলের সঙ্গে যুক্ত হন।

বাংলাদেশ দল দুটি আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচ খেললেও সাকিব খেলতে পারেননি। আইপিএলের শেষটাও রাঙাতে পারেননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। কোয়ালিফায়ার ও ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রানের খাতা খুলতে পারেননি। আউটের ধরণও ছিল হতশ্রী। শিরোপার লড়াইয়ের রাতে বল হাতেও সাকিব ছিলেন ছন্দহীন। ৩ ওভারে ৩৩ রান দেওয়ার পর অধিনায়ক তার কোটার ওভার শেষ করার সাহস করেননি। অবশ্য সাকিবকে দিয়ে বল করানো বাদেও চেন্নাই ১৯২ রানের বিশাল পুঁজি পেয়েছিল।

সাকিবের এবারের আসরটি মোটেও ভালো যায়নি। ৮ ম্যাচে রান করেছেন মাত্র ৪৭। বল হাতে উইকেট মাত্র ৪টি। ব্যাটিং গড় মাত্র ৯.৪০ আর বল হাতে ওভার প্রতি রান দিয়েছেন ৭.১৯ করে।

আইপিএল শেষ। ব্যর্থ সাকিব, ব্যর্থ কলকাতা। এবার বাংলাদেশের সুপারস্টারের সামনে লাল সবুজের জার্সিতে বিশ্বকাপ মহারণ। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণের এই মহারণে তার দিকে তাকিয়ে থাকবে দল। তিনি কি পারবেন নিজের সেরাটা দিয়ে দলকে সাফল্যে ভাসাতে? বলে দেবে সময়।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন