এনজিও কর্মীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদায় এনজিও কর্মী সাইফুল ইসলামকে (৩৮) শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। সোমবার সকালে উপজেলার সীমান্তবর্তী কুতুবপুর বিজিবি ক্যাম্পের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত সাইফুল ইসলাম উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের পীরপুরকুল্লা গ্রামের আব্দার হোসেনের ছেলে ও এনজিও ব্র্যাকের চাপাইনবাবগঞ্জ শাখার মাঠ কর্মী। নিহেতর পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল রোববার বিকালে ঈদ বাজারের জন্য মাংস কিনতে বাড়ি থেকে বের হন সাইফুল। এরপর থেকেই তার খোজ পাওয়া যাচ্ছিলো না। রাতেই নিখোঁজের বিষয়টি পুলিশকে জানায় তার পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে পরদিন সোমবার সকালে কুতুবপুর বিজিবি ক্যাম্পের পাশের একটি বাগানে মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয় কৃষকরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে সাইফুলের মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ চুয়াডাঙ্গা সদও হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে সোমবার সকালেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা-জীবননগর সার্কেল) আবু রাসেল, দামুড়হুদা থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল খালেক।

সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা-জীবননগর সার্কেল) আবু রাসেল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সাইফুল ইসলামের গলায় রক্তাক্ত জমাট লাল দাগ আছে। নাক ও কান দিয়ে রক্ত বের হওয়ার অবস্থা দেখা যায়। এতে প্রথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের পর প্রকৃত রহস্য উদঘাটন হবে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন