একটিও ভোট পড়েনি উখিয়ার যে বুথে!

সরওয়ার আলম শাহীন::
উখিয়া উপজেলা নির্বাচনে সকাল থেকেই আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে ছিল উখিয়া সদরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত উখিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রটি। কারন অতীতের নির্বাচনগুলোতে এ কেন্দ্রটির আশেপাশে থাকতো জনস্রোত। ভোটকেন্দ্রে যাওয়া যেত ভীড় ঠেলে। কিন্ত উপজেলা নির্বাচনে এ প্রথমবার ছিল ভিন্নচিত্র। সকাল থেকেই ভোটকেন্দ্র ছিল ভোটার শূন্য। ভোটের কোন আমেজ ছিলনা, বাইরে কোন প্রার্থীর সমর্থক পর্যন্ত ছিলনা।
সকাল সাড়ে ১১ টায় কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে মনে হয়েছে, কেন্দ্রে গুলো কাঁদছে ভোটারের জন্য, আর কেন্দ্রগুলো অসহায় কান্না দেখেছে সেখানে ভোট নেওয়ার জন্য নিয়োজিত কর্মকর্তারা। তাদের হা-হুতাশ দেখা গেছে ভোটারের জন্য, নিজ বুথে যেন অন্ততঃ কয়েকটি ভোট পড়ে। কিন্ত এক্ষেত্রে সবাই দু’একটা করে ভোট পেলেও একটি বুথে একটিও ভোট পড়েনি।
এদিকে প্রচণ্ড গরমে কেন্দ্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত পুলিশ সদস্য গাছের ছায়ার নিচে বসে সময় পাচ করছে। তাদের অবস্থা মনে হয়েছে, ভোট শেষ হয়ে গেলেই যেন তারা বাচে।
উখিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা -২১৩৪ টি। গননা শেষে এ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে মোট-৪৩টি।
যে বুথে একটিও ভোট পড়েনি সে বুথটি হচ্ছে কেন্দ্রের দোতলার ৫ নং বুথ। এ বুথে ৪০২ টি ভোটের মধ্যে একটিও ভোট না পড়ায় স্বাভাবিক ভাবে হতাশ কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার রত্নাপালং উচ্চ বিদ্যালয়ের সরকারি শিক্ষক মনসুর। তাইতো তিনি বললেন, সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ৮ ঘন্টায় একটি ভোটও না পড়া আসলেই কষ্টের। এটা প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে আমার জন্য একটি ইতিহাস হয়ে থাকবে।

ad