উখিয়ায় ব্র্যাকের জিএফডি’তে ৯৯% অস্থানীয় ও রোহিঙ্গা নিয়োগের অভিযোগ

তৌহিদুল আরব, উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ফিরে:
কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‘ডব্লিউএফপি(WFP)’ সহযোগীতায় ব্র‍াকের নতুন ইন্টিগ্রেটেড(GFD) প্রজেক্টে লোক নিয়োগে স্থানীয়দের সাথে চরম প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে! জানা গেছে ঐ প্রজেক্টের পিসি আব্দুলাহ আল সহ মামুন শাহীন, উখিয়ার মাত্র ৩জন ছেলে নিয়োগ পেয়েছে, আর বাকী উত্তরাঞ্চলের ও রোহিঙ্গা লোক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সম্প্রীতি উখিয়া-টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এনজিও সংস্থার চাকরীতে স্থানীয়দের গণহারে ছাটাই করে উত্তরাঞ্চলের লোক নিয়োগদান এবং কম বেতনে যোগসাজশে রোহিঙ্গাদের নিয়োগ দেওয়ার ব্যাপক অভিযোগ উঠে। এতে উখিয়ার স্থানীয় বেকার তরুণদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ বিরাজ করে।

সম্প্রতি উখিয়ার তরুণদের সাথে নিয়ে সাংবাদিক নেতা ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বে উখিয়া অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি নামে একটি সংগঠন উখিয়া, কোর্টবাজার, কক্সবাজারে স্থানীয়দের অধিকার আদায়ে মানবন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল সহ বিভিন্ন আন্দোলন চালায়। উক্ত সংগঠনটি জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়ে তাদের অধিকার আদায়ের দাবী তোলে। অতঃপর উখিয়ার ছেলে-মেয়ে স্থানীয়দের দাবী মেনে নিয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন উখিয়া অধিকার আন্দোলনের একত্বতা প্রকাশ করে গেজেট প্রকাশ করে। গেজেটে বলা হয় রোহিঙ্গাদের কারণে উখিয়া-টেকনাফবাসী সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত। তাই দাতা সংস্থা বা এনজিও গুলোর উখিয়া-টেকনাফের মানুষের প্রতি নজর দিতে হবে। তাদের চাকরী দিতে হবে, লোক নিয়োগে তাদের শিক্ষাগত যোগ্যতার শীতিল রাখার অনুরোধ জানান জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন। এবং এনজিও তে লোক নিয়োগে স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা উল্লেখ করলে, ব্র্যাকের লোক নিয়োগে তারা সেটা স্থানীয়দের সাথে ব্যাপক প্রতারণা করে। এতে উখিয়ায় বেকার স্থানীয় যুবকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে উখিয়ার তরুণ ছাত্রনেতা ও অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য ইউনুছ, সাকিব, লুৎফুর, জয়নাল, আবুল কালাম, গিয়াস উদ্দীন বাবুল, মোস্তাক, শাহীন, আরাফাত, সুজন, ইমরান, সাজিত, রোমান, হিরু, ইউসুফ, নান্নু, ইলিয়াস সহ আরো অনেক তরুণ স্থানীয়দের অধিকার আদায়ে তীব্র প্রতিবাদ জানান এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ব্যাকের নিয়োগে তীব্র সমালোচনা ও অভিযোগ তোলেন। অবিলম্বে ব্র‍্যাকের জিএফডি প্রজেক্টে স্থানীয়দের নিতে হবে, আর নয়তো ব্র‍্যাকের সব ডিপি অফিস বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেন উখিয়া স্থানীয় বেকার তরুণরা।

ad