ad

উখিয়ায় নতুন বিদ্যুৎ সংযোগে ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

বিশেষ প্রতিবেদক :

বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে গ্রাহক হয়রানি ও দালালমুক্তভাবে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে কাজ করছে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির। এর অংশ হিসাবে কক্সবাজারের উখিয়া তে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের জন্য ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ নামে একদিনের একটি কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) সকালে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি উখিয়া জোনাল অফিসের এজিএম প্রকৌশলী আমিনুর রসুল এর নেতৃত্বে একটি টিম পিক-আপ ভ্যানে করে মিটার-তারসহ যাবতীয় বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম নিয়ে উপজেলার তুতুরবিল এলাকায় সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছান।

এরপর বিদ্যুৎ সংযোগের অনুমোদন নেন গ্রাহকরা। অনুমোদন হতেই ৩৩ টি নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়।

এ সময় কাজের ফাঁকে ফাঁকে এজিএম প্রকৌঃ আমিনুর রসুল জানান, বিদ্যুৎ সংযোগ নিতে গ্রাহকরা নানাভাবে হয়রানির স্বীকার হন। অফিসে দিনের পর দিন ঘুরতে হয়। দালালে খপ্পরে পরে বাড়তি অর্থ ব্যয় হয় তাদের। গ্রাহকদের দুর্ভোগের কথা ভেবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কিভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া যায় সেই পরিকল্পনা থেকেই তিনি ভ্যান গাড়িতে বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি নিয়ে গ্রামে গ্রামে বাড়ি বাড়ি যাচ্ছি। এটাকে ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ নাম দিয়েছেন বলে জানান তিনি। গ্রাহকের বাড়িতে বসেই টাকা নিচ্ছেন, রশিদ দিচ্ছেন, দিচ্ছেন নতুন সংযোগ।

তিনি আরও জানান, গ্রামের বাড়িতে সংযোগ দিতে নিচ্ছেন অফিস নির্ধারিত জামানতে ৪’শ টাকা, আবেদন ফি, ভ্যাটসহ ১’শ ১৫ টাকা ও সমিতির সদস্যের জন্য পঞ্চাশ টাকা। সর্বমোট ৫’শ ৬৫ টাকায় মিটারসহ বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়ে যাচ্ছে বাড়িতে বসেই গ্রাহকরা।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি উখিয়া জোনাল অফিসে এর ডিজিএম গোলাম সারওয়ার মোরশেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে ‘ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চলমান এ প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে প্রতিদিন নতুন নতুন সংযোগও পাচ্ছে গ্রাহকরা। এতে একদিকে গ্রাহক হয়রানি কমে আসছে, অন্যদিকে প্রত্যেকটি বাড়ি বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিত হচ্ছে।

এই কর্মসূচিতে উখিয়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ওয়ারিং পরিদর্শক আশিকুর রহমান , লাইনম্যান কাজী মোঃ বয়ান এবং মাহবুব রহমান উপস্থিত ছিলেন।

ad