ইয়াবায় ভাগ্য বদলেছে উখিয়ার বাবুলের !

কক্সবাজার প্রতিনিধি::
ইয়াবা ব্যবসার মাধ্যমে ভাগ্য বদলেছে উখিয়া উপজেলার হারাশিয়া হালহাচা পাড়া গ্রামের হেলপার বাবুল বড়ুয়ার। ২ বছরের ব্যবধানে এলাকায় বেশকিছু জমি ছাড়াও সম্প্রতি হাত দিয়েছেন ৫ তলা ফাউন্ডেশনের বাড়ী নির্মানে। হঠাৎ বাবুল বড়ুয়ার অলৌকিক পরিবর্তনে এলাকার জনমনে ব্যাপক কানাঘুষা চলছে।

জানা যায়,উখিয়া উপজেলার কোটবাজার মনি মার্কেট সংলগ্ন এলাকায় একটি ধানের মেইলে হেলপার হিসেবে কর্মরত বাবুল বড়ুয়া হেলপারগিরির আড়ালেই চালিয়ে যাচ্ছেন ইয়াবা বানিজ্য।

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের হারাশিয়া হালহাচা গ্রামের ২ নং ওয়ার্ডের মৃত বঙ্কিম চন্দ্র বড়ুয়ার ছেলে বাবুল বড়ুয়ার ২ বছর পূর্বেও ছিল একটি কুড়ে ঘরে দিনানিপাত। কিন্ত ধানের মেইলে হেলপারের আড়ালে সবার চোখে ধুলো দিয়ে বাবুল বড়ুয়া ভাগ্য বদলাতে বেচে নিয়েছে মাদক ব্যবসা ।
স্থানীয়রা জানায়, ইয়াবা ব্যবসার মাধ্যমে ২ বছরের ব্যবধানে বাবুল বড়ুয়া বিপুল পরিমাণ মালিক বনে গেছে। ধানের মেইলে নামকাওয়াস্তে হেলপারীর আড়ালে প্রতি সপ্তাহে কোর্ট প্যান্ট পড়ে বিয়ের নামে চট্রগ্রাম যাওয়া আসা করে বাবুল। এভাবে সে ২ বছরের ব্যবধানে বাড়ীর পাশে ২ কাটা জমি কিনে নেয়। সম্প্রতি নির্মান কাজে হাত দিয়েছেন কোটি টাকা ব্যায়ে ৫ তলা বাড়ী নির্মান। বাড়ী নির্মান শুরু করার পর গত নবেম্বর মাসে উখিয়া থানা পুলিশ বাবুল বাড়ুয়ার বাড়ীতে হানা দেয়। কিছুদিন বাড়ী নির্মান কাজ বন্ধ থাকার পর প্রশাসন ম্যানেজের মাধ্যমে আবারো শুরু করা হয়েছে বাড়ী নির্মানের কাজ।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে উখিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর বলেন,ইয়াবার ব্যাপারে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করেছে উখিয়া থানা পুলিশ। মাদকে অভিযুক্ত কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা,সে যতবড় প্রভাবশালী হউক না কেন। নির্মান করা বাড়ী ইয়াবা ব্যবসায়ীর কিনা খবর নেওয়া হবে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন