আল্লাহর ইচ্ছায় আযানের শব্দকে কেউ স্তব্ধ করতে সক্ষম হবে না: এরদোগান

আঙ্কারা: তুরস্কের ইস্তাম্বুলের ১৩২ বছরের পুরনো ঐতিহাসিক ‘ইলদিজ হামিদী’ মসজিদের সংস্কার শেষে পুনরায় খুলে দেয়া হয়েছে।

ইস্তাম্বুলের বেসিক্টাসে অবস্থিত মসজিদটি শুক্রবার দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান ইবাদতের জন্য খুলে দেন।

১৩২ বছর আগে অটোমান সুলতান দ্বিতীয় আব্দুলহামদ এর সময়কালে মসজিদটি নির্মিত হয়েছিল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এরদোগান বলেন, ‘ইরাক, সিরিয়া ও জেরুজালেমে অবস্থিত মুসলিম সভ্যতার ওপর আক্রমন চলছে। আমাদের পূর্বপুরুষদের রেখে যাওয়া মসজিদ ও ঐতিহ্য রক্ষা করা আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের পূর্বপুরুষদের রেখে যাওয়া উত্তরাধিকারকে ইচ্ছাকৃতভাবে ধ্বংস করা হয়েছে।’

গত বছরের ব্যর্থ অভ্যুত্থানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অভ্যুত্থান প্রচেষ্টাকারীরা তাদের আক্রমনের শুরুতেই আমাদের প্রার্থনার স্থানগুলোকে টারর্গেট করেছিল।’

এরদোগান বলেন, ‘আল্লাহর ইচ্ছায়, আযানের শব্দকে কেউ স্তব্ধ করতে সক্ষম হবে না।’

তুরস্ক নতুন নতুন মসজিদ নির্মাণ করছে উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, ‘ধর্ম, সংস্কৃতি ও ইতিহাস সম্পর্কে ভবিষ্যত প্রজন্মকে শিক্ষিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

তুরস্কের বৃহত্তম মসজিদ ইস্তাম্বুলের ‘ক্যাম্লিকা মসজিদ’ পরবর্তী বছরে নির্মাণ সম্পন্ন হবে বলে তিনি জানান।

ইলদিজ হামিদী মসজিদটি পুনর্নির্মাণের জন্য ৭.৬ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করা হয়েছে। মসজিদটি পুনর্নির্মাণে চার বছর সময় লেগেছে বলে মসজিদ ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক আদনান আর্তেম জানান।

সূত্র: আনাদুলো এজেন্সি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন