আর কি কখনও স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলতে পারবেন সাকিব?

ক্রীড়া ডেস্ক, উখিয়া নিউজ :


অস্ত্রোপচার না করিয় অনেকটা জোর করে এশিয়া কাপ খেলা কাল হয়ে দাঁড়াল বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসানের জন্য। তার সেই জাদুকরী বাম হাতের কনে আঙুলির অবস্থা ইতিমধ্যেই সবাই জেনে গেছেন।

নতুন দুঃসংবাদটা সাকিব শুক্রবার রাতে নিজেই জানিয়ে গেলেন চিকিৎসার উদ্দেশ্যে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে। বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডারের বাম হাতের আঙুলটি আর কখনই শতভাগ ঠিক হবে না!
শল্যবিদ গ্রেগ হয়কে চোট পাওয়া বাঁ হাতটা দেখানো এবং অস্ত্রোপচার নিয়ে আলোচনা করার উদ্দেশ্যে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নের বিমান ধরার আগে সাকিব বললেন, ‘এই আঙুলটা আর কখনো শতভাগ ঠিক হবে না। যেহেতু নরম হাড়, আর কখনো জোড়া লাগার সম্ভাবনা নেই। পুরোপুরি ঠিক হবে না। অস্ত্রোপচার করে ওরা এমন একটা অবস্থায় এনে দেবে হাতটা, ব্যাট ভালোভাবে ধরতে পারব, ক্রিকেট চালিয়ে যেতে পারব। ‘

ad

সুতরাং তিনি ক্রিকেট খেলাটা যে চালিয়ে যেতে পারবেন সে ব্যাপারে সাকিবকে আশার বাণী শুনিয়েছে ডাক্তাররা। নিজের পরবর্তী চিকিৎসা পরিকল্পনা নিয়ে বাংলাদেশের টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক বললেন, ‘সংক্রমণ সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তার জায়গা। ওটা যতক্ষণ পর্যন্ত জিরো পার্সেন্টে না আসবে, ততক্ষণ পর্যন্ত কোনো শল্যবিদ অস্ত্রোপচার করবে না। ওখানে হাত দিলে হাড়ে চলে যাবে, আর হাড়ে চলে গেলে পুরো হাত নষ্ট! এখন আসল ব্যাপারটা হচ্ছে কীভাবে সংক্রমণটা কমানো যায়।

জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে চোট পেয়েছিলেন সাকিব। এই চোট কোনোভাবে সামলে খেলে গেছেন গত ৯ মাস। চোট সারাতে অস্ত্রোপচারের বিকল্প ছিল না। চেয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে অস্ত্রোপচার করিয়ে ফেলার। কিন্তু বিসিবি সভাপতির ইচ্ছা এবং ফিজিওর সবুজ সংকেত পেয়ে এশিয়া কাপে খেলতে যান সাকিব। দলের ফিজিও হয়েও এত বড় বিপদটা ধরতে পারেননি চন্দ্রমোহন! বিসিবি তাকে শোকজ করেছে। আর চোট নিয়ে এশিয়া কাপ থেকে ফিরেছেন সাকিব। আরেকটু হলেই তার হাতটাই হয়তো …..!